করেরহাটে ১৬শ পরবিারকে খাদ্য সামগ্রী ও মুরগী উপহার দিলেন নয়ন চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতবিদেক
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লকডাউন শুরুর দিন থেকে পবিত্র রমজান শুরু। সন্ধ্যায় চাঁদ দেখা গেলে পবিত্র মাহে রমজান। হতদরিদ্র মানুষ গুলোর পক্ষে সম্ভব হয়নি রমজানে সেহেরির খাবার আর ইফতার সামগ্রী কিনে রাখার। দুশ্চিন্তায় পরিবাগুলো। এমন অসহায় দরিদ্র ১৬শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছেন মিরসরাই উপজেলার করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এনায়েত হোসেন নয়ন।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সকালে উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের হাবিলদারবাসা এলাকায় ১৬শ পরিবারের মাঝে ১ টি করে মুরগী ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য শহীদ উল্লাহ, আজাদ উদ্দিন, ফেয়ার আহমদ মিন্টু , বেলাল উদ্দিন, শফি আহম্মেদ, যুবলীগ নেতা ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া সহ আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগ নেতৃবন্দ।

ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে খাদ্য সামগ্রী নিতে আসা সব মানুষই দিনমজুর। যা আয় করে তা দিয়ে চলে যায় দিন। অধিকাংশ পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিরা কেউ রাজমেন্ত্রী, কেউ কাঠমিস্ত্রী পেশায় নিয়োজিত আবার কেউ রিক্সচালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। প্রতিবছর রমজানের প্রথম সেহেরী আর ইফতারে থাকতো একটু বাড়তি আয়োজন। এখন করোনা পরিস্থিতির কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না। চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি তারা।

খাদ্য সামগ্রী নিতে আসা বৃদ্ধা জোসনা আরা জানান, রমজান শুরু হয়ে গেছে, কিভাবে বাজার করবো চিন্তায় ছিলেন। চেয়ারম্যানের এমন উদ্যোগের ফলে সেহেরীর খাবার আর ইফতার সামগ্রী পেয়ে বেশ খুশি তিনি।

করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন বলেন, পবিত্র মাহে রমজানের শুরুতে পরিবারগুলোর মাঝে হাসি ফুটাতে আমার ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। আমাদের অভিবাবক, সাবেক সফল মন্ত্রী, সাত বারের এমপি প্রিয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের নির্দেশে ও আগামীর এমপি আইটি বিশেষজ্ঞ মাহবুব রহমান রুহেল ভাইয়ের সার্বিক পরামর্শে ১৬শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছি। পর্যায়ক্রমে আরো ১৪শ পরিবার সহ মোট ৩ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হবে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*