চাঁদাবাজির অভিযোগে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফারুক গ্রেফতার


নিজস্ব প্রতিনিধি
চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন মিরসরাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও মায়ানী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ওমর ফারুক (২৮)। তার বাড়ি মায়ানী ইউনিয়নের (৫নং) ওয়ার্ডের মধ্যম মায়ানী এলাকার মনির আহাম্মদ মুক্তার বাড়ী। ফারুক ওই এলাকার বাসিন্দা আবুল কাশেমের পুত্র। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যা ৬টায় উপজেলার বড়তাকিয়া বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে মিরসরাই থানা পুলিশ।
জানা গেছে, ফারুকের বিরুদ্ধে মায়ানী ইউনিয়নের মধ্যম মায়ানী গ্রামের ব্যবসায়ী ফজলুল করিমের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে মিরসরাই থানায় ফারুকের বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি।
১৩ নং মায়ানী ইউনিয়ন পরিষদের কবির আহাম্মদ নিজামী বলেন, ফারুক একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। একসময় ছাত্রলীগ করতো। এলাকার একজন ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদা চাওয়ার কারণে তিনি গ্রেফতার হয়েছেন।
মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান বলেন, ফারুকের বিরুদ্ধে মিরসরাই থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। বর্তমানে চাঁদাবাজির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আগামীকাল সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।
এদিকে ফারুক গ্রেফতার হওয়ায় তার এলাকায় আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ করেছে মায়ানী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।
মায়ানী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নুরের ছাপা নয়ন বলেন, এলাকায় ফারুকের বিরুদ্ধে চাঁদার জন্য হুমকি, ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। স্থানীয় লোকজন তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস পেতেন না। সর্বশেষ এলাকার এক ব্যবসায়ীর করা মামলায় তাকে গ্রেফতার করেছে মিরসরাই থানা পুুলিশ।
ফারুক।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*