‘জাপানের বুকে যেন এক খণ্ড বাংলাদেশ’


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

প্রতিবছর ১২৬টি দেশের ১২৬ জন তরুণ লিডারকে নিয়ে স্কলারশিপ লিডারশিপ ট্রেনিং এর আয়োজন করে থাকে জুনিয়র চেম্বার জাপান। গত ৪ জুলাই জাপানের কোমো মোটো শহরে অনুষ্ঠিত ১৪ দিনব্যাপী এবারের ট্রেনিং এ বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা বড়তাকিয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট।

এবারের ট্রেনিং-এ ১২৬ দেশ থেকে আবেদনের পর যাচাই-বাছাই শেষে ৮৬ দেশের ৮৬ জনকে এ স্কলারশিপ দেয়া হয়েছে। এ ট্রেনিং প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করে গত বৃহস্পতিবার দেশে ফিরে অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন, ১৪ দিনের এ অনুষ্ঠানে আমি যেন ছিলাম ‘জাপানের বুকে এক খণ্ড বাংলাদেশ’।

জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) জাপানের আমন্ত্রণে লিডারশিপ ট্রেনিং স্কলারশিপ নিয়ে জাপানের উদ্দেশে গত ৪ জুলাই বাংলাদেশ থেকে যাত্রা করেন জেসিআই বাংলাদেশের নির্বাহী সহ-সভাপতি ও জেসিআই চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। সেখানে গিয়ে জাপানের কোমো মোটো শহরে গত ৫ জুলাই অনুষ্ঠিত ‘লিডারশিপ ট্রেনিং স্কলারশিপ’ বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। ট্রেনিং এ নতুন তরুণ নেতৃত্ব ও সাংগঠনিক দক্ষতা নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন বিশ্বের তরুণ সফল উদ্যোক্তারা।

এলিট জানান, এবার বিশ্বের ৮৬টি দেশ থেকে একজন করে ১৪ দিনের প্রেস্টিজিয়াস এ স্কলারশিপ দিয়েছে। এ ১৪ জনের মধ্যে বাংলাদেশের হয়ে স্কলারশিপ পান নিয়াজ মুর্শেদ এলিট। এ অনুষ্ঠানের যাবতীয় খরচ বহন করেছে জেসিআই জাপান।

এলিটের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, তিনি উচ্চ শিক্ষা সম্পন্ন করে পারিবারিক ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়েন। ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত থাকলেও তিনি একজন সফল সংগঠক। তিনি জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা। এছাড়াও চট্টগ্রাম খুলশী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি তিনি, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি, বর্ষবরণ পরিষদের সভাপতি, বাংলাদেশ দাবা ফাউন্ডেশনের চিফ কো-অর্ডিনেটর (চট্টগ্রাম বিভাগ), ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব লিমিটেড ঢাকার ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ক্রিকেট কমিটির কো-চেয়ারম্যান, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব লিমিটেড চট্টগ্রামের পরিচালক ও ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান।

বড় তাকিয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিধারী করেন।

Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*