প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এক প্রবাসীর খোলা চিঠি


বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বরাবরে প্রবাসী বাংলাদেশীদের পক্ষ থেকে খোলা চিঠি লিখেছেন মিরসরাই উপজেলার হাইতকান্দি ইউনিয়নের বাসিন্দা সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রবাসী শেখ মুহাম্মদ খোরশেদ আলম।

চিঠি..
স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুর কন্যা আপনি, আপনার হাত ধরেই বাংলাদেশের উন্নয়ন শুরু হয়েছে। যার কারনে বিশ্ব আজ বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক রোল মডেল হিসাবে মনে করে যাচ্ছে। বিশ্বে যখন অর্থনৈতিক মন্দা দৃশ্যমান তখন আমাদের রিজার্ভসহ অন্যান্য অর্থনৈতিক খাত সমূহ ছিল উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।


মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনারা অবশ্যই ৭১ এর চেতনার পক্ষে, তারমধ্যে গনতন্ত্র একটি। আপনারা যখন উন্নয়নে বিশ্বাসী তার বিপরীতে গনতন্ত্র মানুষের ভোটাধিকার অনুপস্থিত যাহা চেতনার সাথে সাংঘর্ষিক। দেশে আইনের শাষনের ভারসাম্য লক্ষনীয়। আপনি জানেন, গুম খুন হত্যাকান্ড এমনকি আপনার দলের আভ্যন্তরীন কোন্দলে হতাহতের ঘটনা প্রতিদিন মাস এমনকি বছর জুড়ে চলছে। আইনের শাসন মানে সু-শাসন সর্বক্ষেত্রে সমানভাবে চলবে এটাই ৭১ এর চেতনা ছিল? অপরাধি যতবড় হোক আইনের আওতায় বিচার হবে এটাই স্বাভাবিক। বিচার ব্যাক্তিবিশেষের জন্য ভিন্ন লক্ষনীয়।
আপনি দুর্নীতি ও ঘুষের বিরুদ্ধে সবসময়ই জিরো টলারেন্স থাকার পরেও কতিপয় ব্যাক্তি দেশের অর্থনৈতিক খাতের উল্লেখযোগ্য ব্যাংকখাত থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা কিভাবে নিয়ে গেছে? কারা সেইসব ব্যাক্তি তদন্তকারী সংস্থার রিপোর্ট প্রকাশ বা অভিযুক্ত ব্যাক্তিদের তালিকায় আজও দেশের জনগণ জানতে পারে নাই। বিচারের আওতায় গুটিকয়েক ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান উপস্থিত, যেখানে রাঘববোয়াল’রা অনুপস্থিত!
রেমিট্যান্স যোদ্ধা যাদেরকে বলেন তারা তাদের ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত। হাজার মাইল দুরে থাকলেও সবসময়ই বুকে লালন করে স্বাধীন বাংলাদেশ এবং অক্লান্ত পরিশ্রম করে দেশে অর্থনৈতিক চাকা সচল রাখের। প্রায় সাত মিলিয়নের উপর প্রবাসী ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। প্রবাসীরা দেশে ফিরলে নানারকম হয়রানির শিকার শুরু হয় বিমানবন্দর থেকে বিদেশে ফেরা পর্যন্ত।
আপনার বিচক্ষণ নেতৃত্ব ও দিক নির্দেশনার কারনে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে শিক্ষার উন্নতির বিপরীতে প্রতিটি বোর্ড পরীক্ষার সময়ে একটি চক্র প্রশ্নপত্র ফাঁস করে ভবিষত প্রজন্মকে মেধাহীন করে দিতেছে। জাতি তার ভবিষত প্রজন্মকে সু শিক্ষায় শিক্ষিত করতে পারলেই দেশ মেধাহীন থেকে রক্ষা পাবে।
যে বা যাহারা বিভিন্ন বিভাগে ব্যার্থতার পরিচয় দিতেছে তাদেরকে পরিবর্তন করে নতুন নেতৃত্ব, অভিজ্ঞ ব্যাক্তিদের নিয়োগ দিন। জবাবদিহিতা নিশ্চিত করুন। তখনি আপনার নেতৃত্ব এবং বিচক্ষণতার ফল জাতি ভোগ করবে অনন্তকাল।
আপনার দীর্ঘায়ু কামনা করতেছি সকল প্রবাসীদের পক্ষ থেকে দোয়া থাকবে আপনার জন্য।

শেখ মুহাম্মদ খোরশেদ আলম
সংযুক্ত আরব আমীরাত।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*