বারইয়ারহাট আরাফাত হোটেলের সামনে থেকে ৮ হাজার ইয়াবা সহ মাদকের পাইকার আটক


নিজস্ব প্রতিনিধি
মিরসরাইয়ে ইয়াবা সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক করেছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। গত রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে স্থানীয় বারইয়াহাট পৌরসভা এলাকার আরাফাত হোটেলের সামনে থেকে ৮ হাজার ছয়শত পনের পিছ ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হওয়া মো. রিয়াজ উদ্দিন ওরফে রুবেলের বাড়ি উপজেলার ধুম ইউনিয়নের উত্তর নাহেরপুর গ্রামে। সে গ্রামের মো. ইউসুফ মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা সে মিরসরাইয়ের প্রত্যন্ত গ্রামে খুচরা বিক্রেতাদের হাতে ইয়াবা পৌঁছে দিত।
মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানার ওসি মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, ‘অন্য ইয়াবা কারবারীদের থেকে আটক হওয়া রুবেলের ধরণ একটু ভিন্ন। আমরা ধারণা করছি ইয়াবা ডিষ্ট্রিবিউশন এবং তার নেপথ্যে থাকা কুশিলবদের সম্পর্কে তার থেকে আমরা জানতে পারবো।’
গ্রেপ্তার হওয়া রুবেল পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কোনরকম তথ্য দিয়েছে কি না জানতে চাইলে ওসি বলেন, ‘বেশ কিছু নাম তার থেকে জানা গেছে তবে নামগুলো আমরা যাচাই বাছাই করে দেখছি। প্রকৃত কারবারীদের নাম জানার জন্য আদালতে আসামীর রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। আশা করি ভালো কিছু মিলবে।’
এদিকে গতকাল সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) মাদক কারবারী রুবেলকে আদালতে হাজির করার পর আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করে। তবে পুলিশ ইয়াবা কারবারের সাথে জড়িত নেপথ্যের কুশিলবদের ধরতে আদালতের কাছে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আলমগীর হোসাইন বলেন, ‘ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হওয়া রুবেলকে বিজ্ঞ আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে। আদালতের শুনানীর পর জানতে পারবো। তবে আমরা আশা করছি রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদে স্থানীয় মাদক ব্যবসার মূল উৎপাটন করা সম্ভব হবে।’

Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*