মিরসরাইয়ে ৩০ বছরের পুরনো রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ


নিজস্ব প্রতিবেদক>>>
মিরসরাইয়ে ৩০ বছররে পুরনো রাস্তা কেটে মাটি নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করেছে স্থানীয় উত্তর হাসিম নগরএলাকা বাসি। অভিযুক্ত বলছেন আমার জায়গা ৩০ বছর ব্যবহার করতে দিয়েছি এটা কি আমার অপরাধ?
গত ৩০ বছর ধরে চলাচল করা একটি জনবহুল রাস্তা কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে। উপজেলার ১১ নং মঘাদিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের হাসিমনগর এলাকার গোলাপ বিবি সড়কের সংযোগ রাস্তাটি কেটে ফেলায় ক্ষোভ জানিয়েছে এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) সকালে সরেজমিনে গেলে উত্তর হাসিমনগর এলাকার নারী-পুরুষ একত্রিত হয়ে তাদের দীর্ঘ সময় ধরে চলাচলের রাস্তাটি কেটে ফেলার প্রতিবাদ করেন। এলাকার বাসিন্দা মজিবুল হক, আমিনুল হক, নুরুল আমিন, হারাধন দাশ, শাহ আলম জানান, উত্তর হাসিমনগর এলাকায় আমরা প্রায় দুই শতাধিক পরিবার বসবাস করছি। স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, মক্তব, মসজিদ, হাট-বাজারে যাওয়ার জন্য সবাই এই সড়কটি ৩০ বছর ধরে ব্যবহার করে আসছি। এলাকাবাসী নিজের জায়গা দিয়ে এই রাস্তা তৈরি করেন। যারা জায়গা দিতে পারেনি তারা অর্থ দিয়ে সহায়তা করেছেন। হঠাৎ করে স্থানীয় প্রভাবশালী শহীদুল্লাহ, অহিদুন্নবী, রফিক, আরিফ, সাঈদ গংরা ঝুকিপূর্ণভাবে রাস্তার পাশ কেটে মাটি নিয়ে বড় গর্ত করে ফেলেন। যার ফলে রাস্তাটির ব্যাপক ক্ষতি হয় এবং সামনের বর্ষায় রাস্তাটি ভেঙ্গে যোগাযোগ ব্যাবস্থা বন্ধ হয়ে যাবে।

স্থানীয় মলিয়াইশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থী সাগর চন্দ্র দাশ বলেন, আমরা এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন স্কুলে যাই। এখন রাস্তা কেটে বন্ধ হয়ে গেলে কিভাবে স্কুলে যাবো!

এলাকার বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম বলেন, গত ২৯ জানুয়ারি এস্কেবেটর দিয়ে রাস্তা কেটে মাটি নিয়ে যায় ক্ষমতাশালিরা। আমরা বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে অবহিত করলে তিনি ঘটনাস্থলে এসে রাস্তা কাটা বন্ধ করেন। সাইফুল ইসলাম আরো অভিযোগ করে বলেন, শহীদুল্লার ছেলে রফিক পুলিশে চাকরী করেন। তাই তিনি উপস্থিত থেকে সবাইকে মামলার ভয় দেখিয়ে রাস্তার পাশ ঘেঁষে বড় গর্ত করেন মাটি নিয়ে যান, এই ব্যাপারে আপন্তি জানালে সবাইকে দেখে নেয়ার হুমকিও দেন। আমরা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিনকে জানিয়েছি।

এই বিষয়ে মোঃ শহীদুল্লাহ বলেন, এলাকার লোকজন দীর্ঘদিন যাবত আমার জায়গার উপর নির্মিত রাস্তা দিয়ে চলাচল করেছে। রাস্তার বেশির ভাগ জায়গাই আমার। এখন আমার জায়গা প্রয়োজন হচ্ছে তাই রাস্তা কেটে ফেলছি। আমার জায়গা আমি কাটবো এতে সমস্যা কোথায়? আমি যদি রাস্তার জন্য জায়গা দিতে হয় তাহলে পাশে যার জমি সেও তো জায়গা দিতে হবে। শুধু আমার জায়গা দখল করে রাস্তা হবে এটা কোন ধরনের কথা, আমার জায়গা ব্যবহার করতে দিয়েছি গত ত্রিশ বছর এটা কি আমার অপরাধ?? এখন আমার জায়গা আমার প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবো না??

এই বিষয়ে ১১ নং মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাস্টার বলেন, রাস্তা কেটে ফেলার খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই এবং স্কেবেটর দিয়ে রাস্তার পাশ ঘেঁেষ মাটি খনন বন্ধ করেছি। উভয় পক্ষকে এই বিষয়ে সমাধান করার পরামর্শ দিয়েছি।

Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*