মিরসরাই বিএনপির বর্ষিয়ান নেতা এম আলা উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন -প্রিয় নেতাকে শেষ বিদায় জানাতে সর্বস্তরের মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক…
মিরসরাই উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এম আলা উদ্দিননের দাফন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার (৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় করেরহাট কেএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রথম ও নিজগ্রাম সরকারতালুকে ২য় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এম আলা উদ্দিনকে শেষবারের মত দেখতে দল-মত নির্বিশেষে হাজার হাজার মানুষ ছুটে আসেন। রাষ্ট্রীভাবে গার্ড অব অনার প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়া আহমেদ সুমন ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কবির আহম্মদ।
জানাযাপূর্ব সমাবেশে সাবেক ছাত্রনেতা আলহাজ্ব মহসিন আলীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এস জালাল মজুমদার, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক এমডিএম কামাল উদ্দিন চৌধুরী, মিরসরাই উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন, ছাগলনাইয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নুর আহম্মদ মজুমদার, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির সদস্য সচিব কাজী আব্দুল্লাহ আল হাসান, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুরুল আমিন, আব্দুল আউয়াল চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান (সাময়িক বরখাস্তকৃত) নুরুল আমিন, উত্তর জেলা কৃষক দলের আহবায়ক এমএ হালিম, যুগ্ম আহবায়ক ইসহাক কাদের চৌধুরী, উপাধ্যক্ষ আতিকুল ইসলাম লতিফী, কেন্দ্রীয় মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, সাবেক ছাত্রনেতা আ.ক.ম জান্নাতুল করিম খোকন, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব শাহীদুল ইসলাম চৌধুরী, মোহাম্মদ আলমগীর, গাজী নিজাম উদ্দিন, নুরুল আবছার, আজিজুর রহমান চৌধুরী, গোলাম মাওলা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দিন মাহমুদ, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি জাহিদুল আফসার জুয়েল, করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন, সাবেক চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, বারইয়ারহাট পৌরসভা বিএনপির সাবেক সভাপতি মাঈন উদ্দিন লিটন, আহবায়ক দিদারুল আলম মিয়াজী, মিরসরাই পৌর বিএনপির আহবায়ক ফকির আহম্মদ, সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম পারভেজ, বিএনপি নেতা আলা উদ্দিন, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক শাহীনুল ইসলাম স্বপন, উপজেলা জাসাসের যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল করিম নোমান প্রমুখ।
গত রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় রাজধানীর ডেল্টা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।
তিনি বণার্ঢ রাজনৈতিক জীবনে জাগদলের আহবায়ক, উপজেলা বিএনপির দুইবার সভাপতি, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ৩ মেয়ে ১ ছেলে সহ আত্মীয়-স্বজন ও অসংখ্য রাজনৈতিক শুভাকাঙ্খী
রেখে গেছেন।

Share

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*