বান্দরবান মুক্ত দিবস আজ

১৪ ডিসেম্বর বান্দরবান মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত হয় বান্দরবান। বান্দরবান শহরের বর্তমান পানি উন্নয়ন বোর্ডের অফিস প্রাঙ্গণেই তৎকালীন মুক্তি বাহিনীর ক্যাম্প ছিল। সেখানেই বীর মুক্তিযোদ্ধারা লাল-সবুজের বিজয়ের পতাকা উড়িয়ে বিজয় উল্লাস করেন।

এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা জানান, ১৪ ডিসেম্বর শহরের বেশ কয়েকটি স্থানে বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করা হয়। দুর্গম এলাকা ও যোগযোগ ব্যবস্থা ভাল না হওয়ায় দেশের অন্যান্য স্থানের মত বান্দরবানে বড় ধরনের কোনো যুদ্ধ হয়নি।

তবে বেশ কিছু পাকিস্তানি সেসময় বান্দরবানে আসে। বান্দরবান শহরের বর্তমান ক্যাচিংঘাটাসহ কয়েকটি এলাকায় রাজাকার ও পাক সেনাদের সঙ্গে সম্মুখযুদ্ধে একজন শহীদ হন।

অন্যদিকে রোয়াংছড়ি উপজেলার ক্যানাইজু পাড়া এলাকায় টি এম আলী, সা অং মার্মাসহ তিন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন।

১৪ ডিসেম্বর জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে পাকিস্তানি বাহিনীর সদস্য ও পাকিস্তানিদের বিতাড়িত করে মুক্তিবাহিনীর সদস্যরা। এর মধ্য দিয়ে মুক্ত হয় বান্দরবান।

স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা তারু মিয়া জানান, পাকিস্তানি হানাদারদের হটিয়ে আমরা বান্দরবানকে হানাদার মুক্ত করি। এই সরকারের আমলে আমরা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দেখতে পেয়ে অনেক খুশি ।

বান্দরবান সদর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শফিকুর রহমান বলেন, ১৪ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হওয়ার পরে আমরা বিজয় মিছিল করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*